মিজানুর রহমান আজহারীর জীবনী ও কর্ম | Mizanur Rahman Azhari

মিজানুর রহমান আজহারীর জীবনী: যুব সমাজের আইডল, ইসলামিক স্কলার মিজানুর রহমান আজহারী সাহেব সুমিষ্ট কন্ঠের অধিকারী। খুব অল্প দিনের মধ্যেই মিজানুর রহমান আজহারী যুব সমাজের কাছে অত্যন্ত গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করেছেন। তিনি একাধারে ইসলামি স্কলার, ইসলাম এবং জীবন জীবিকা সম্পর্কে অত্যন্ত মনমুগ্ধকর এবং বস্তুনিষ্ট আলোচনা করে থাকেন।

মিজানুর রহমান আজহারীর জীবনী

কুরআন এবং হাদিসের আলোকে অত্যন্ত সহজ সরলভাবে মানুষদের দ্বীনের দাওয়াত দিয়ে থাকেন। মিজানুর রহমান আজহারী হুজুরের ওয়াজ শোনার জন্য মাহফিলে হাজার হাজার ইসলামপ্রিয় তৌহিদী জনতা যোগ দিয়ে থাকেন।

আজ আমরা মিজানুর রহমান আজহারী হুজুরের অজানা কিছু তথ্য জানবো।

মিজানুর রহমান আজহারীর জন্ম:

মিজানুর রহমান আজহারী একজন বাংলাদেশী বিশিষ্ট ইসলামী বক্তা। বাংলাদেশের যে কয়জন ইসলামী স্কলার রয়েছেন তার মধ্যে মিজানুর রহমান আজহারী অন্যতম।

মিজানুর রহমান আজহারী হুজুর 1990 সালের 26 শে জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। 

তিনি অত্যন্ত সাবলীল এবং বস্তুনিষ্ঠভাবে ইসলামের সঠিক এবং সুন্দর ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ এর মাধ্যমে ওয়াজ মাহফিল করে থাকেন।

মিজানুর রহমান আজহারীর জন্মস্থান:

মিজানুর রহমান আজহারী ঢাকা জেলায় অধিবাসী। তিনি ঢাকা জেলাধীন ডেমরা উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেছেন। ইসলামী আলোচক হিসেবে তিনি যেমন জনপ্রিয়তার শীর্ষে অবস্থান করছেন ঠিক তেমনি ভাবে সমালোচিতও হয়েছেন।

মিজানুর রহমান আজহারী পিতা-মাতা:

মিজানুর রহমান আজহারীর পিতা একজন মাদ্রাসা শিক্ষক। মিজানুর রহমান আজহারীর মাতা একজন গৃহিনী।

মিজানুর রহমান আজহারীর পড়াশোনা:

মিজানুর রহমান আজহারী ছোটবেলা মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেছেন। এরপর তিনি ঢাকায় অবস্থিত দারুন্নাজাত সিদ্দিকিয়া কামিল মাদরাসায় পড়াশোনা করেছেন। পরবর্তীকালে তিনি আল্লাহ আজহার বিশ্ববিদ্যালয় বৃত্তি পান এবং সেখানে পড়াশোনা করেন। মিশরের আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার কারণে তাঁর নামের সাথে ‘আজহারী’ উপাধি যুক্ত করা হয়েছে।

মিজানুর রহমান আজহারীর বৈবাহিক জীবন:

মিজানুর রহমান আজহারী 29 শে জানুয়ারির 2014 সালে  বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। দাম্পত্য জীবনে তার দুই কন্যা সন্তান রয়েছে।

মিজানুর রহমান আজহারী হুজুরের শিক্ষা জীবনের সাফল্য:

মিজানুর রহমান আজহারী 2004 সালে দাখিল পাস করেন এবং 2006 সালে আলিম পাশ করেন। দারুন্নাজাত সিদ্দিকিয়া কামিল মাদরাসা থেকে তিনি দাখিল এবং আলিম পড়াশোনা করেন।এই দুটো পরীক্ষায় তিনি বাংলাদেশ মাদ্রাসা বোর্ডে মেধা তালিকার শীর্ষে অবস্থান করে

2007 সালে তিনি মিশরীয় সরকারের স্কলারশিপ পান। পরবর্তীতে তিনি মিশরের আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ে তাফসির কুরআন ভিত্তিক বিজ্ঞান বিভাগে পড়াশোনা করে খ্যাতি অর্জন করেন।

মিশরের আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ে থেকে গ্রাজুয়েশন শেষ করেছেন।

পরবর্তীতে তিনি মালয়েশিয়ার আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘হিউম্যান এম্ব্রায়োলজি ইন দ্য হোলি কুরআন’(পবিত্র কুরআনে মানব ভ্রূণবিদ্যা) বিষয়ে এমফিল ও পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি প্রার্থী হিসেবে মনোনীত হন এবং এখান থেকে তিনি সফলভাবে  ‘হিউম্যান বিহ্যাভিয়ারেল ক্যারেক্টারইসটিক্স ইন দ্য হোলি কুরআন অ্যান্ড অ্যানালিটিক্যাল স্টাডি’ (পবিত্র কুরআন ও বিশ্লেষণী গবেষণায় মানব আচরণগত বৈশিষ্ট্য) বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন।

কর্মজীবন:

2010 সালে আজহারী হুজুর ইসলামিক গজল ও কিরাত দিয়ে তার কর্মজীবনের সূচনা করেন। তিনি বাংলাদেশের বেসরকারি টেলিভিশন এটিএন বাংলায় একটি ইসলামী অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।

পরবর্তীকালে 2015 সালের শুরুর দিকে তিনি ওয়াজ মাহফিল নিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন।

এছাড়াও তিনি বাংলাদেশের আরো একটি বেসরকারি টেলিভিশন বৈশাখী টেলিভিশনে একটি ইসলামী অনুষ্ঠান করতেন যেটির নাম ছিল ‘ইসলাম ও সুন্দর জীবন’

মিজানুর রহমান আজহারী হুজুরের জনপ্রিয়তার কারণ:

কুরআন-হাদিস বিষয়ক সহজ-সাবলীল এবং গবেষণাধর্মী আলোচনা এবং বিশ্লেষণ এর কারণে তিনি জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। যদিও তিনি ইসলামের অনুশাসন মেনে চলেন তথাপি তিনি সমসাময়িক বিষয়গুলো গবেষণাধর্মী আলোচনার মাধ্যমে সকলের নিকট সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেন।

তার আলোচনা বর্তমান যুব সমাজের নিকট অত্যন্ত গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছেন। তিনিই অত্যন্ত স্মার্ট এবং মার্জিত ভাবে মিষ্টি কন্ঠে আলোচনা উপস্থাপন করে থাকেন।

মিজানুর রহমান আজহারী হুজুরের সম্মাননা:

মিজানুর রহমান আজহারী হুজুর বিভিন্ন সম্মাননা পেয়েছেন। তিনি বহু গুণে গুণান্বিত।

তিনি ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ আল-আজহার থেকে  প্রথম স্থান অধিকার করেছিলেন এবং বৃত্তি পেয়েছেন।

আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়  থেকে পূর্ণ স্নাতক বৃত্তি পেয়েছেন। 

আশাকরি লেখাগুলো আপনার ভালো লেগেছে। আপনি চাইলে আজহারী হুজুরের বেশকিছু ওয়াজ দেখতে এবং ডাউনলোড করতে পারেন। Download Mizanur Rahman Waz

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top